অবশেষে নিজেকে সাত পাঁকে বাঁধলেন নোবেলজয়ী মালালা

অবশেষে নিজেকে সাত পাঁকে বাঁধলেন নোবেলজয়ী মালালা

আন্তর্জাতিক দিনকাল বাংলাদেশ বিনোদন

যমুনা ওয়েব ডেস্কঃ অবশেষে নিজেকে সাত পাঁকে বাঁধলেন আফগানিস্তানের সেই মালালা ইউসুফজাই । নোবেলজয়ী এই কন্যা জীবন সঙ্গী হিসাবে বেছে নিলেন পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের কর্তা অসর মালিককে। মঙ্গলবার বিয়ের আসর বসে বার্মিংহামে । এরপর আফগান কন্যা টুইট করে গোটা বিশ্বকে জানিয়ে দেন নিজের বিয়ের খবর ।

তালিবান অধ্যুষিত আফগানিস্তানের মেয়ে মালালা ইউসুফজাই এখন গোটা বিশ্বের কাছে অতি পরিচিত মুখ। শান্তির জন্য নোবেল জয়ী মালালা মঙ্গলবার নিজেই টুইট করে নিজের বিয়ের ছবি পোস্ট করেন । সেখানে তিনি জানান,  ‘আমার জীবনের একটি মূল্যবান মুহূর্ত। অসর এবং আমি আজীবনের সঙ্গী হওয়ার জন্য আজ গাঁটছড়া বাঁধলাম।’

একে তো নোবেলজয়ীর বিয়ের আসর, তার উপর মালালা তাঁর জীবনযুদ্ধের জন্য আন্তর্জাতিক মহলে পরিচিত। সোশ্যাল মিডিয়াতে মালালার ছবি দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, সেখানে জাঁকজমক তেমন ছিল না। সে বিষয়ে আলোকপাত করে মালালা জানিয়েছেন,  ‘বার্মিংহামের বাড়িতেই পরিবার-পরিজনের সামনে একটা ছোট ঘরোয়া নিকাহ অনুষ্ঠানে আমরা বিশেষ মুহূর্তটি উদ্‌যাপন করেছি।’

বিয়ের যে সব ছবি পোস্ট করা হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে, বিয়ের সাজপোশাকে বাহুল্য ছিল না মালালার। পিচ রঙের সালোয়ার কামিজ পরেছিলেন। মাথায় ছিল ওড়না। স্বামী এবং বাবা-মায়ের সঙ্গে ছবি দিয়ে টুইটারে মালালা লিখেছেন, ‘আপনারা আশীর্বাদ করুন। আগামীর সফরে একসঙ্গে শুরু করার এই মুহূর্তে আমরা উত্তেজিত।’

উল্লেখ্য, নোবেল জয়ী মালালার বয়স এই মুহূর্তে ২৪ । বর্তমানে তিনি বিশ্বে মেয়েদের শিক্ষা নিয়ে আন্দোলন করছেন । এর আগে, মেয়েদের শিক্ষা নিয়ে সরব হবার জন্য আফগানিস্তানে তালিবানদের হাতে গুলি বিদ্ধ হয়েছেন তিনি । ২০১২ সালে এক কথায় বলতে গেলে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন তিনি । এরপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেন তিনি । ২০১৬ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে রাষ্ট্রপুঞ্জে নিজের বক্তব্য রাখেন মালালা। শিক্ষার অধিকারে লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে বরাবর সরব হয়েছেন তিনি। ২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয় মালালাকে। ২০২০ সালে মালালার নামে স্কুলও খোলা হয় টেক্সাসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.