ইন্টারনেটের অন্ধাকর জগৎ; যেখানে সাধারণ কেউ প্রবেশ করতে পারে না, আর একবার করলে..| Secrets of Dark Web

অজানা রহস্য তথ্যপ্রযুক্তি

ইন্টারনেটে সব কিছু বদলে দিচ্ছে। আমরা যেভাবে বাস করি, কিভাবে কাজ করি বা যেভাবেই জিবন যাপন করি, ইন্টারনেট ছাড়া আমাদের চলেই না ইন্টারনেট হলো আমাদের মৌলিক চাহিদা।

ইন্টারনেট আমাদের এমন ভাবে সংযুক্ত করেছে, যা আগে কখনো কল্পনা করা যায়নি, এটি এমন একটি স্থান, যেখানে পৃথিবীর যে কোনো জায়গা থেকে মানুষ এক সাথে থাকতে পারে। ইন্টারনেট এমন অনেক কিছু রয়েছে যা আমরা জানি না

বৈধ অবৈধ যাই চান না কেনো ইন্টারনেট আপনাকে সার্ভিস দিতে প্রস্তুত, কিন্তু কত দূর পর্যন্ত সার্ভিস দিতে পারে ইন্টারনেট, এখন যদি আপনকে বলি যে এই পৃথিবীর নিচেও আরো একটি পৃথিবীর রয়েছে এবং সেটি আমাদের পৃথিবীর থেকে ৫০০ গুন বড়, তাহলে অবাক হবেন নিশ্চয়ই। কথা টি সত্ত না হলেও অন্তনিহত সার্থ কিন্তু একই।

যে রাজোক্ত ইন্টারনেট দুনিয়ার। আমারা ওয়েবসাইট ব্রাউজ সেটি কিন্তু না, আরে গভির আরো মারাক্ত অন্ধকার জগত যার নামঃ( ডিপ ওয়েব) বলা হয়ে থাকে যে সামরিক যোগাযোগ ব্যবস্থা ৯৮% আছে সেই ডিপ ওয়েব যা প্রচলিত সার্চ ইন্জিন খুজে পাওয়া যায় না।
আমরা সাধারণত ওয়েব যতটুকু অংশ নাগাল পাই তা অতিক্ষুদ্র অংশ মাএ। সম্পূর্ণ ওয়েব যেটুকু অংশে পরিচিত যেটুকু অংশে যাতায়াত করতে পারি তা হলো কেবল তার উপরি ভাগ। প্রচলিত ব্রাউজার সার্চ ইন্জিন ডার্ক ওয়েব এক্সেস নিতে পারে না।
এর জন্য বিশেষ ব্রাউজার এবং সার্চ ইন্জিন রয়েছে। মূলত একান্ত যোগাযোগ এর জন্য এই ডার্ক ওয়েব। গোপনীয়তার সুরক্ষায় ধিরে ধিরে এখানে মিলিত হতে শুরু করে অপরাধী রা অপরাধ প্রবল মানুষের অনা কনা এখানে প্রবেশ করতে হয় নিজেকে লুকিয়ে।

এই রহস্য ময় এই ডার্ক ওয়েব কথাই বলবো আজ। ইন্টারনেটে সারা পৃথিবীরতে ছড়ানো, এমন কি যতটুকু অংশে সচারাচর এক্সেস করে থাকি,তার সম্পর্কে আমাদের কোনো ধারনা নেই।

একজন মানুষের কাছে আন্দাজ করা সম্ভব না কত বিশাল একটি ক্ষেত্র, কোনো কিছু খুজে না পেলে আমরা সম্ভবত গুগলে দিগে সার্চ দেই এমন অনেক জিনিস আছে, সেগুলো সার্চ দিলে গুগল ব্যর্থ হয়। এটি সত্তি যে গুগল এবং ইয়াহুর কাছে শত করা ১% ভাগ তথ্য আছে।

ডার্ক ওয়েব হচ্ছে ডিপ ওয়েব একটি অংশ সাধারণ অবৈধ কার্যকলাপ হয়ে থাকে ডার্ক ওয়েব এ। ডার্ক ওয়েব ইন্টারনেট এমনি একটি অংশ, যেকোনো ব্রাউজার সার্চ ইন্জিন এক্সেস নিতে পারে না। ডার্ক ওয়েব পরিচয় লুকিয়ে প্রবেশ করা যায় বিধায় বিভিন্ন অপরাধ মূলক কাজ, এই ওয়েব করা হয়। ডার্ক ওয়েব আছে মেইল/ ব্লগ ফেইসবুক /ইউটিউব/ সামাজিক যোগাযোগ বিভিন্ন মাধ্যম বিভিন্ন এ্যাপস অলাদা ভার্সন আছে এই ডার্ক ওয়েব জন্য।

বাহিরে দুনিয়ায় নিষিদ্ধ বিভিন্ন সাইট রয়ে গেছে এখনো ডার্ক ওয়েব এ আছে বিভিন্ন ওয়েব সাইট ও নিজস্ব পেমেন্ট সিস্টেম। অপরাধ জগতের সকল কাজ করা যায়। মাদক দ্রব্য থেকে শুরু করে ভাড়া করা কিলার যারা টাকার বিনিময়ে কাজ করে তাদের ডার্ক ওয়েব সাইট পাওয়া যায়।

এগুলোর পাশা পাশি চুরি করা ক্রেডিট কার্ড নম্বর পতিতা ভাড়া করা শিশু পর্নোগ্রাফি ইত্যাদি অবৈধ জিনিস পাওয়া যায়। ডিপ ওয়েব কারেন্সি হলোঃ বিট কয়েন, এই বিট কয়েন লেনদেন এর সময় পার্সোনাল ইনফরমেশন প্রয়োজন নেই এবং টেক্স দিতেও হয় না।

তাই ডার্ক ওয়েব লেনদেন এর জন্য বিট কয়েন ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু কেউ ভূলেই এই ডার্ক ওয়েব ডুকার চেষ্টা করলে, তারা বিভিন্ন ভাইরাস জনিত এ্যাপস আপনার কম্পিউটার ডুকিয়ে একটি কম্পিউটার কে অর্কৃত করতে সক্ষম। ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করার সময় বিভিন্ন বিপদ জনগ সাইটে ডুকে যেতে পারেন। যা আপনার জীবন টাও নষ্ট করে দিতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.