সমাজসেবক

একজন সমাজসেবক ডাঃ সাহেদুল ইসলাম কাওসার

অজানা রহস্য দিনকাল বাংলাদেশ
চিকিৎসা ও সমাজ সেবায় অনন্য অবদান রাখছেন ডাঃ সাহেদুল ইসলাম কাওসার। ফেনী জেলা বিএমএ’র সভাপতি ডাঃ কাওসার চিকিৎসা ক্ষেত্রসহ নানা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে দেশের মানুষের সেবা করে আসছেন।
ডাঃ কাওসার ফেনী জেলার ফুলগাজী উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জগতপুর গ্রামে ৬ সেপ্টেম্বর ১৯৬৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মরহুম আনোয়ার উল্ল্যাহ ভুইঁয়া ও মাতা মরহুমা সাজেদা খানম।

 

তিনি ৫ ভাই ও ৭ বোনের মধ্যে ৩য়। তার সহধর্মিনী বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাক্তার জাহানারা আক্তার রুমা স্বামীর সমাজ সেবামূলক কার্যক্রমের সুযোগ্য সহযোগী। ব্যক্তি জীবনে তিনি ২ পুত্র সন্তানের জনক বড় পুত্র সাজিদ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে অধ্যয়ননরত। ছোট পুত্র সাকিফ নটরডেম কলেজে অধ্যায়নরত। তিনি এক বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী।

 

তিনি ১৯৮৯ সালে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেন এবং ১৯৯৩ সালে মেডিসিন ও কিডনি রোগের উপর উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি এজমা ও বক্ষব্যাধির উপর জাতীয় বক্ষব্যাধি হাসপাতাল থেকে ডিটিসিডি অর্জন, নর্দান ইউনিভার্সিটি থেকে আল্ট্রাসনোগ্রাফীর উপর ডিপ্লোমা অর্জন করেন। তিনি রয়েল সোসাইটি অফ লন্ডন ও কলেজ অফ চেস্ট ফিজিশিয়ান ইউএসএ অনারারী ফেলো, বারডেম একাডেমি থেকে মেডিকেল শিক্ষকদের জন্য প্রযোজ্য CMed কোর্স সম্পন্ন করেন ডাঃ কাওসার।

 

বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজে অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্বরত। তিনি একবার বিএমএর যুগ্ন-সম্পাদক দুইবার সাধারণ সম্পাদক এবং বর্তমান সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। চিকিৎসা পেশায় শিক্ষাকতা, প্র‍্যাকটিস ছাড়াও চিকিৎসা সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের সফল উদ্যোক্তা হিসেবে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

 

তিনি স্বাচিপ ফেনী জেলার প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং বর্তমানে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।
চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি সাংবাদিকতা জগতে ও বিচরণ রয়েছে ডাঃ কাওসারের। তাঁর সম্পাদনা ও প্রকাশনায় “পাক্ষিক স্পেকট্রাম” নামে একটি পত্রিকা ফেনী থেকে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে।

 

ডাঃ কাওসার ১৯৯৫ সালে জগতপুর গ্রামে দাতব্য চিকিৎসালয় চালু করেন। এরপর ২০১৪ সালে তাঁর পিতা মাতার নামে আনোয়ার সাজেদা হেলথ্ কেয়ার ক্লিনিক চালু করেন। এখানে একজন চিকিৎসক ব্যবস্থাপত্র ও বিনামূল্যে ওষুধ প্রদান করে থাকেন। বছরে প্রায় ১০ হাজার হত দরিদ্র মানুষ এখান থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করে থাকেন।

 

ডাঃ কাউসার বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন ও রয়েছেন। তিনি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি-নিরাপদ সড়ক চাই, ফেনী জেলা ও ফেনী বিজ্ঞান ক্লাব। আজীবন সদস্য-এ্যাজমা এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ সোসাইটি অব সনোগ্রাফী, বাংলাদেশ চেস্ট এন্ড হার্ট এসোসিয়েশন, ফেনী, ফেনী ডায়াবেটিক সমিতি এবং ফেনী সমিতি ঢাকা, প্রাক্তন সভাপতি রোটারী ক্লাব অব ফেনী সেন্ট্রাল ও এসিস্টেন্ট গভর্নর ছিলেন। তিনি ফেনী জেলা কারাগারের বেসরকারী পরিদর্শক, ফেনী সরকারি আলিয়া মাদ্রাসার কার্যকরী কমিটির সদস্য ও ফেনী বড় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে।

 

ব্যক্তি জীবনে তিনি অনেক সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত রয়েছেন। সমাজের সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা পেলে এ ধরনের কাজের পরিধি আরও বাড়াতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন ডাঃ কাওসার। তিনি শুধু একজন নামকরা চিকিৎসক নন, তিনি অনন্য এক সমাজ সেবক এবং বাংলাদেশের গর্ব। তাঁর মতো মহান ব্যাক্তি, সোনার বাংলাদেশ গড়ার হাতিয়ার যেন প্রতিটি ঘরে জন্ম নেয়। আমরা ওনার দীর্ঘায়ু এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.