খাওয়া কমাতেই হবে ! জনগণের প্রতি কড়া নির্দেশ কিম জং উনের

খাওয়া কমাতেই হবে ! জনগণের প্রতি কড়া নির্দেশ কিম জং উনের

আন্তর্জাতিক তথ্যপ্রযুক্তি দিনকাল লাইফস্টাইল

যমুনা ওয়েব ডেস্কঃ ‘খাওয়া কমাতেই হবে’ – উত্তর কোরিয়ার জনগনের প্রতি কড়া বার্তা দিলেন কিম জং উন। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার চরম খাদ্য সঙ্কট মোকাবিলায় দেশটির সর্বোচ্চ নেতা দেশের জনগণকে আগামী ২০২৫ সাল পর্যন্ত খাবারের পরিমাণ কম করার নির্দেশ দিয়েছেন । 

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ায় খাদ্য সঙ্কট চরম আকার ধারন করেছে । করোনা পরিস্থিতিতে চীন থেকে আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে কিম জং উনের দেশ । কিন্তু জনগণের এই চরম বিপদের মধ্যেও কড়া নির্দেশ দিলেন কিম । আগামি তিন বছর সবাইকে কম করে খেতে  নির্দেশনা জারি করছেন সরকারি কর্মকর্তারা।

এদিকে সামনেই শীতকাল শুরু হচ্ছে । সেই সময় খাদ্য সঙ্কট আরও বাড়বে । সরকার বাইরের থেকে আমদানি না করে এই নির্দেশ দেওয়ায় দেশের সাধারন মানুষের দুর্ভোগ আরও বাড়তে চলেছে । বিশ্বজুড়ে অতিমারি করোনা সংক্রমণের জন্য ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে  চীনের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সীমান্ত বন্ধ রয়েছে। এই অচলাবস্থার কারণে দেশটিতে তীব্র খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষের দাম সাধারন মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে । 

কিম জং উনের এই নির্দেশ জারি হওয়ায় সাধারন জনগণ খুবই হতাশ । তাদের অভিযোগ, খাদ্য সঙ্কটে  এখনই জরুরি অবস্থা বিরাজ করছে এবং খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছে সাধারণ মানুষ। অথচ কর্তৃপক্ষ বলছে, খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দিতে, তারা সত্যিই হতাশ। জাতিসংঘের ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার সংস্থার ( এফএও) তথ্য অনুসারে দেখা গেছে,  চলতি বছর উত্তর কোরিয়ায় খাদ্য ঘাটতির পরিমাণ আট লাখ ৬০ হাজার টন।

এছাড়াও, ২০২১ সালের আগস্টে উত্তর কোরিয়ায় বন্যার কারণে এক হাজার একশ ৭০টি ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়েছে, অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয় পাঁচ হাজারের মতো মানুষকে। তবে দেশের খাদ্য সঙ্কট চরম আকার ধারন করলেও, কিম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করেনি । চলতি মাসেই বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে দেশটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.